শূণ্যতা

একটু বাদে পরের ষ্টেশন, সে নামবে

একসাথে আর পথ চলা হবে না

অনেক দূরের পথ তবু যেন মনে হল

এইতো সবে পথ চলা শুরু,একটুবাদে ষ্টেশন

তার সরসী নয়ন কাজল কালোয় ঘিরেছে

বিন্দু জলের রেখা চোয়াল ছুঁয়ে পথ এঁকেছে।

সে কি কিছু রেখে গেল আমার কাছে

অভিমান,অভিযোগ বা অসহায় আবদার,

নাকি কিছু দিয়ে গেল জল রেখায়!

একাকীত্ব,বিষণ্ণতা ,সময় জুড়ে শূণ্যতা 

আমি তার সম্মুখ বসে তবু দূরত্ব অসীম।

তার একাকীত্বের বালিশ ছিঁড়ে গেছে

স্বপ্ন গুলো উড়ে গেছে দূর সীমানায়,

আমি ভাবছি ক্রমশ ভেবে চলেছি

ষ্টেশন এসে গেছে, সে নেমে যাবে।

আমি জানলা করে দুনয়নে তাকে ছুঁয়ে

সময় বেড়ে চলেছে, সে দূরে সরে যাচ্ছে,

সে একবারও বলে গেল না, খেয়াল রেখো

আমিও বলিনি, তুমি খুব ভালো থেকো।

শুধু নজরটাকে ঘোরালাম বুকের ডানপাশে

তাক করে,অসহায় ভারে ভালবাসার বারণে

কিছুক্ষণ চেয়ে হার্টবিট -কে বলে দিলাম

এতোটা ভালোবাসা উচিত হয়নি তোর!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *