বর্ষা ঝরা একটি রাত চাই

পিছন থেকে আলতো জড়িয়ে ; জানালার গ্রীলের ফাঁক দিয়ে হাত বাড়িয়ে তোমায় নিয়ে বৃষ্টি স্পর্শ করবো।

আমার কথা উপেক্ষা করে ; আদুল পায়ে, খোলা ছাদে হাতে হাত ধরে গভীর ছন্দে বৃষ্টির ফোঁটা গাঁয়ে মাখবে।

খানিকটা ব্যবধানে – লালরাঙা শাড়ি পড়ে , কঁপালে টিপ দিয়ে ; বেলী ফুলের খোঁপা খুলে ,কফির মগে বিদ্যুৎ চমকানো দেখতে ডাকবে গভীর সূরে।

বর্ষা ঝরা একটি রাত চাই-

অঝোর বৃষ্টির রিমঝিম শব্দে; বদ্ধ ঘরে হালকা 

আলোয়, তোমার রূপের বেলায় আমাকে ভাসিয়ে দিবো অচেতন মস্তিষ্কে।

তোমার মনে বৃষ্টির অপ্রকাশ্য বার্তা পৌঁছাতে ;

তোমার আঙুলে আঙুল জড়িয়ে, সিঁথির ভাঁজে ,চোখের পাতায়, আলতো চুমো এঁটে দিবো 

বারংবার তৃপ্তিতে। 

কদম ফুলের সুবাস নিতে-

শাড়ির প্রতিটি ভাজে লুকায়িত তোমার কোমল 

গতরে গভীর নিঃশ্বাস নিবো তৃপ্তিতে।

আষাঢ়ে পূর্ণিমার মায়াময় রূপ খুঁজতে –

ভালোবাসার আলিঙ্গনে ,হাতের আলতো ছোঁয়ায় সাজিয়ে নিবো তোমার অভ্যন্তরীণ রংমহল।

পুনরায় বৃষ্টি ফোঁটার সতেজ শিহরণ পেতে-

ঘর্মান্ত কঁপালে চুমো এঁটে ; কথা শূন্য আলাপে তোমার উষ্ণ শ্বাস পেয়ে, কোমল বাহুডোরে আঁকড়ে হৃদ-স্পন্দনে মিশে যাবো দুজনে।

একটু নিয়ম ডিঙিয়ে ,একটি রাত নিজের করে নিয়ে,একটু বেহায়াপনা হয়ে দু’জনে মিশে যাবো ভালোবাসার অন্তরালে। 

ভোরের পাখি ডাকা অবধি ; অবিরাম বর্ষা ঝরা রাতে বারংবার মিশে যাবো একে অপরের অস্তিত্বের ভূভাগে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *